Muntakhab Hadith

 
 
SIFAT
Ilm and Dhikr  
SECTION
Virtues of Al-Qur'an  
Type
Hadith  
SERIAL NUMBER
79  
الحديث فى العربى
عَنْ بُرَيْدَةَ رَضِىَ اللهُ عَنْهُ قَالَ : كُنْتُ جَالِسًا عِنْدَ النَّبِىِّ ﷺ فَسَمِعْتُهُ يَقُوْلُ : إِنَّ الْقُرْآنَ يَلْقَى صَاحِبَهُ يَوْمَ الْقِيَامَةِ حِيْنَ يَنْشَقُّ عَنْهُ قَبْرُهُ كَالرَّجُلِ الشَّاحِبِ فَيَقُوْلُ لَهُ هَلْ تَعْرِ فُنِى ؟ فَيَقَوْلُ : مَاأَعْرِ فُكَ ، فَيَقُوْلُ لَهُ : هَلْ تَعْرِ فُنِى ؟ فَيَقُوْلُ : مَا أَعْرِ فُكَ ، فَيَقُوْلُ : أَنَا صَاحِبُكَ الْقُرْآنُ الَّذِىْ أَظْمَأْتُكَ فِى الْهَوَاجِرِ وَأَسْهَرْتُ لَيْلَكَ ، وَإِنَّكُلَّ تَاجِرٍ مِنْ وَرَاءِ تِجَارَتِهِ وَإِنَّكَ الْيَوْمَ مِنْ وَرَاءِ كُلِّ تِجَارَةٍ فَيُعْطَى الْمُلْكُ بِيَمِيْنِهِ وَالْخُلْدُ بِشِمَالِهِ وَيُوْضَعُ عَلىٰ رَأْسِهِ تَاجُالْوَقَارِ وَيُكْسَى وَالِدَهُ حُلَّتَيْنِ لاَ يُقْوِّمُ لَهُمَا أَهْلُ الدُّنْيَا فَيَقُوْلاَنِ : بِمَ كُسِيْنَا هٰذِهِ ؟ فَيُقَالُ : بِأَخْذِ وَلَدِ كُمَا الْقُرْآنَ ثُمَّ يُقَالُ لَهُ : اقْرَأْوَاصْعَدْ فِىْ دَرَجَةِ الْجَنَّةِ وَغُرَفِهَا فَهُوَ فِىْ صُعُوْدٍ مَادَامَ يَقْرَأُهذَّا كَانَ أَوْ تَرْتِيْلاً . ( رواه حمد ، الفتح الر بانى : )  
হাদিস বাংলা
হযরত বুরাইদাহ (রাযিঃ) বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে এই এরশাদ করিতে শুনিয়াছি যে, কেয়ামতের দিন যখন কুরআন ওয়ালা আপন কবর হইতে বাহির হইবে তখন কুরআন তাহার সহিত এমন অবস্থায় সাক্ষাৎ করিবে যেমন দুর্বলতার দরুন মানুষের রং বিবর্ণ হইয়া যায় এবং কুরআন পাঠকারীকে জিজ্ঞাসা করিবে, তুমি কি আমাকে চিনিতে পার? সে বলিবে, আমি তোমাকে চিনি না । কুরআন পুনরায় জিজ্ঞাসা করিবে, তুমি কি আমাকে চিনিতে পার? সে বলিবে, আমি তোমাকে চিনি না । কুরআন বলিবে, আমি তোমার সঙ্গী-সেই কুরআন, যে তোমাকে কঠিন গরমের দ্বিপ্রহরে তৃষ্ণার্ত রাখিয়াছি এবং রাত্রে জাগাইয়াছি । (অর্থাৎ কুরআনের হুকুমের উপর আমল করার কারণে তুমি দিনে রোযা রাখিয়াছ এবং রাত্রে কুরআনের তেলাওয়াত করিয়াছ ।) প্রত্যেক ব্যবসায়ী আপন ব্যবসার দ্বারা লাভ হাসিল করিতে চায় । আজ তুমি আপন ব্যবসার দ্বারা সর্বাপেক্ষা অধিক লাভ হাসিল করিবে । অতঃপর কুরআন ওয়ালাকে ডান হাতে বাদশাহী দেওয়া হইবে । আর বাম হাতে (জান্নাতে) চিরস্থায়ী থাকার পরওয়ানা দেওযা হইবে । তাহার মাথায় সম্মানের তাজ রাখা হইবে এবং তাহার পিতামাতাকে এমন দুই জোড়া পোশাক পরিধান করানো হইবে দুনিয়াবাসী যাহার মূল্য ধার্য করিতে পারে না । পিতামাতা বলিবেন, আমাদিগকে এই জোড়া পোশাক কি কারণে পরিধান করানো হইয়াছে । তাহাদিগকে বলা হইবে, তোমাদের সন্তানের কুরআন হেফজ করার কারণে । অতঃপর কুরআন ওয়ালাকে বলা হইবে, কুরআন পড়িতে থাক, আর জান্নাতের কুরআন ওয়ালাকে বলা হইবে, কুরআন পড়িতে থাক, আর জান্নাতের মর্তবা ও বালাখানাসমূহে আরোহন করিতে থাক । অতএব যতক্ষণ কুরআন পড়িতে থাকিবে-চাই সে দ্রুত পড়ুক, চাই সে থামিয়া থামিয়া পড়ুক, সে (জান্নাতের মর্তবা ও বালাখানাসমূহে) আরোহণ করিতে থাকিবে । (মুসনাদে আহমাদ, ফাতহে রাব্বানী) ফায়দাঃ কুরআনে করীমের দুর্বলতার দরুন রং বিবর্ণ মানুষের ন্যায় কুরআন ওয়ালার সম্মুখে আসা প্রকৃতপক্ষে স্বয়ং কুরআন ওয়ালার প্রতিচ্ছবি । কারণ সে রাত্রে কুরআনে করীমের তেলাওয়াত এবং দিনের বেলা উহার হুকুমসমূহের উপর আমল করিয়া নিজেকে এরূপ দুর্বল করিয়া ফেলিয়াছিল । (ইনজাহুল হাজাত)   
HADITH ENGLISH
Buraidah Radiyallahu 'anhu narrates: I was sitting with Nabi Sallallahu 'alaihi wasallam and I heard him saying: When the man devoted to the Qur'an will come out of the grave Upon its splitting, on the Day of Resurrection, indeed the Qur'an will meet him like a person whose colour has changed due to weakness. The Qur'an will ask him: Do you recognize me? He will say: No I do not recognize you. The Qur'an will ask him again: Do you recognize me? He will say: No, I do not recognize you. The Qur'an will say: I am your mate, The Qur'an, which kept you thirsty at the mid-day's heat and kept you awake at night. Every trader wishes to earn a profit from his trade, today you are exceptionally rewarded in your trade. So he will be given a kingdom in his right hand; and in the left a certificate to live in Paradise for eternity, and a crown of dignity will be placed on his head. His parents will be given to wear two such pairs of dresses whose value cannot be paid by the people of this world. His parents will say: Why have we been given these dresses to wear? It would be said: For your son's memorizing of the Qur'an. And then the man devoted to the Qur'an will be asked: Recite, and rise in ranks to the upper storeys and adorned rooms of Paradise. He will ascend as long as he recites, whether it be fast and fluently or slowly with pauses and distinctly. (Musnad Ahmed, Fatah-ur-Rabbani)  
 
 
 
previous   Next