Muntakhab Hadith

 
 
SIFAT
Kalimah Tayyibah  
SECTION
Success in the commandments of Allah  
Type
Hadith  
SERIAL NUMBER
199  
الحديث فى العربى
عَنْ سَمُرَةُ بْنُ جُنْدُبٍ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُ، قَالَ: كَانَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ مِمَّا يُكْثِرُ أَنْ يَقُولَ لِأَصْحَابِهِ: هَلْ رَأَى أَحَدٌ مِنْكُمْ مِنْ رُؤْيَا قَالَ: فَيَقُصُّ عَلَيْهِ مَنْ شَاءَ اللَّهُ أَنْ يَقُصَّ، وَإِنَّهُ قَالَ ذَاتَ غَدَاةٍ: «إِنَّهُ أَتَانِي اللَّيْلَةَ آتِيَانِ، وَإِنَّهُمَا ابْتَعَثَانِي، وَإِنَّهُمَا قَالاَ لِي انْطَلِقْ، وَإِنِّي انْطَلَقْتُ مَعَهُمَا، وَإِنَّا أَتَيْنَا عَلَى رَجُلٍ مُضْطَجِعٍ، وَإِذَا آخَرُ قَائِمٌ عَلَيْهِ بِصَخْرَةٍ، وَإِذَا هُوَ يَهْوِي بِالصَّخْرَةِ لِرَأْسِهِ فَيَثْلَغُ رَأْسَهُ، فَيَتَدَهْدَهُ الحَجَرُ هَا هُنَا، فَيَتْبَعُ الحَجَرَ فَيَأْخُذُهُ، فَلاَ يَرْجِعُ إِلَيْهِ حَتَّى يَصِحَّ رَأْسُهُ كَمَا كَانَ، ثُمَّ يَعُودُ عَلَيْهِ فَيَفْعَلُ بِهِ مِثْلَ مَا فَعَلَ المَرَّةَ الأُولَى» قَالَ: " قُلْتُ لَهُمَا: سُبْحَانَ اللَّهِ مَا هَذَانِ؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ " قَالَ: " فَانْطَلَقْنَا، فَأَتَيْنَا عَلَى رَجُلٍ مُسْتَلْقٍ لِقَفَاهُ، وَإِذَا آخَرُ قَائِمٌ عَلَيْهِ بِكَلُّوبٍ مِنْ حَدِيدٍ، وَإِذَا هُوَ يَأْتِي أَحَدَ شِقَّيْ وَجْهِهِ فَيُشَرْشِرُ شِدْقَهُ إِلَى قَفَاهُ، وَمَنْخِرَهُ إِلَى قَفَاهُ، وَعَيْنَهُ إِلَى قَفَاهُ، - قَالَ: وَرُبَّمَا قَالَ أَبُو رَجَاءٍ: فَيَشُقُّ - " قَالَ: «ثُمَّ يَتَحَوَّلُ إِلَى الجَانِبِ الآخَرِ فَيَفْعَلُ بِهِ مِثْلَ مَا فَعَلَ بِالْجَانِبِ الأَوَّلِ، فَمَا يَفْرُغُ مِنْ ذَلِكَ الجَانِبِ حَتَّى يَصِحَّ ذَلِكَ الجَانِبُ كَمَا كَانَ، ثُمَّ يَعُودُ عَلَيْهِ فَيَفْعَلُ مِثْلَ مَا فَعَلَ المَرَّةَ الأُولَى» قَالَ: " قُلْتُ: سُبْحَانَ اللَّهِ مَا هَذَانِ؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ، فَانْطَلَقْنَا، فَأَتَيْنَا عَلَى مِثْلِ التَّنُّورِ - قَالَ: فَأَحْسِبُ أَنَّهُ كَانَ يَقُولُ - فَإِذَا فِيهِ لَغَطٌ وَأَصْوَاتٌ " قَالَ: «فَاطَّلَعْنَا فِيهِ، فَإِذَا فِيهِ رِجَالٌ وَنِسَاءٌ عُرَاةٌ، وَإِذَا هُمْ يَأْتِيهِمْ لَهَبٌ مِنْ أَسْفَلَ مِنْهُمْ، فَإِذَا أَتَاهُمْ ذَلِكَ اللَّهَبُ ضَوْضَوْا» قَالَ: " قُلْتُ لَهُمَا: مَا هَؤُلاَءِ؟ " قَالَ: قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ " قَالَ: «فَانْطَلَقْنَا، فَأَتَيْنَا عَلَى نَهَرٍ - حَسِبْتُ أَنَّهُ كَانَ يَقُولُ - أَحْمَرَ مِثْلِ الدَّمِ، وَإِذَا فِي النَّهَرِ رَجُلٌ سَابِحٌ يَسْبَحُ، وَإِذَا عَلَى شَطِّ النَّهَرِ رَجُلٌ قَدْ جَمَعَ عِنْدَهُ حِجَارَةً كَثِيرَةً، وَإِذَا ذَلِكَ السَّابِحُ يَسْبَحُ مَا يَسْبَحُ، ثُمَّ يَأْتِي ذَلِكَ الَّذِي قَدْ جَمَعَ عِنْدَهُ الحِجَارَةَ، فَيَفْغَرُ لَهُ فَاهُ فَيُلْقِمُهُ حَجَرًا فَيَنْطَلِقُ يَسْبَحُ، ثُمَّ يَرْجِعُ إِلَيْهِ كُلَّمَا رَجَعَ إِلَيْهِ فَغَرَ لَهُ فَاهُ فَأَلْقَمَهُ حَجَرًا» قَالَ: " قُلْتُ لَهُمَا: مَا هَذَانِ؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ " قَالَ: «فَانْطَلَقْنَا، فَأَتَيْنَا عَلَى رَجُلٍ كَرِيهِ المَرْآةِ، كَأَكْرَهِ مَا أَنْتَ رَاءٍ رَجُلًا مَرْآةً، وَإِذَا عِنْدَهُ نَارٌ يَحُشُّهَا وَيَسْعَى حَوْلَهَا» قَالَ: " قُلْتُ لَهُمَا: مَا هَذَا؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ، فَانْطَلَقْنَا، فَأَتَيْنَا عَلَى رَوْضَةٍ مُعْتَمَّةٍ، فِيهَا مِنْ كُلِّ لَوْنِ الرَّبِيعِ، وَإِذَا بَيْنَ ظَهْرَيِ الرَّوْضَةِ رَجُلٌ طَوِيلٌ، لاَ أَكَادُ أَرَى رَأْسَهُ طُولًا فِي السَّمَاءِ، وَإِذَا حَوْلَ الرَّجُلِ مِنْ أَكْثَرِ وِلْدَانٍ رَأَيْتُهُمْ قَطُّ " قَالَ: " قُلْتُ لَهُمَا: مَا هَذَا مَا هَؤُلاَءِ؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: انْطَلِقِ انْطَلِقْ قَالَ: فَانْطَلَقْنَا فَانْتَهَيْنَا إِلَى رَوْضَةٍ عَظِيمَةٍ، لَمْ أَرَ رَوْضَةً قَطُّ أَعْظَمَ مِنْهَا وَلاَ أَحْسَنَ» قَالَ: " قَالاَ لِي: ارْقَ فِيهَا " قَالَ: «فَارْتَقَيْنَا فِيهَا، فَانْتَهَيْنَا إِلَى مَدِينَةٍ مَبْنِيَّةٍ بِلَبِنِ ذَهَبٍ وَلَبِنِ فِضَّةٍ، فَأَتَيْنَا بَابَ المَدِينَةِ فَاسْتَفْتَحْنَا فَفُتِحَ لَنَا فَدَخَلْنَاهَا، فَتَلَقَّانَا فِيهَا رِجَالٌ شَطْرٌ مِنْ خَلْقِهِمْ كَأَحْسَنِ مَا أَنْتَ رَاءٍ، وَشَطْرٌ كَأَقْبَحِ مَا أَنْتَ رَاءٍ» قَالَ: قَالاَ لَهُمْ: اذْهَبُوا فَقَعُوا فِي ذَلِكَ النَّهَرِ " قَالَ: «وَإِذَا نَهَرٌ مُعْتَرِضٌ يَجْرِي كَأَنَّ مَاءَهُ المَحْضُ فِي البَيَاضِ، فَذَهَبُوا فَوَقَعُوا فِيهِ، ثُمَّ رَجَعُوا إِلَيْنَا قَدْ ذَهَبَ ذَلِكَ السُّوءُ عَنْهُمْ، فَصَارُوا فِي أَحْسَنِ صُورَةٍ» قَالَ: " قَالاَ لِي: هَذِهِ جَنَّةُ عَدْنٍ وَهَذَاكَ مَنْزِلُكَ قَالَ: «فَسَمَا بَصَرِي صُعُدًا فَإِذَا قَصْرٌ مِثْلُ الرَّبَابَةِ البَيْضَاءِ» قَالَ: " قَالاَ لِي: هَذَاكَ مَنْزِلُكَ " قَالَ: قُلْتُ لَهُمَا: بَارَكَ اللَّهُ فِيكُمَا ذَرَانِي فَأَدْخُلَهُ، قَالاَ: أَمَّا الآنَ فَلاَ، وَأَنْتَ دَاخِلَهُ " قَالَ: قُلْتُ لَهُمَا: فَإِنِّي قَدْ رَأَيْتُ مُنْذُ اللَّيْلَةِ عَجَبًا، فَمَا هَذَا الَّذِي رَأَيْتُ؟ " قَالَ: " قَالاَ لِي: أَمَا إِنَّا سَنُخْبِرُكَ، أَمَّا الرَّجُلُ الأَوَّلُ الَّذِي أَتَيْتَ عَلَيْهِ يُثْلَغُ رَأْسُهُ بِالحَجَرِ، فَإِنَّهُ الرَّجُلُ يَأْخُذُ القُرْآنَ فَيَرْفُضُهُ وَيَنَامُ عَنِ الصَّلاَةِ المَكْتُوبَةِ، وَأَمَّا الرَّجُلُ الَّذِي أَتَيْتَ عَلَيْهِ، يُشَرْشَرُ شِدْقُهُ إِلَى قَفَاهُ، وَمَنْخِرُهُ إِلَى قَفَاهُ، وَعَيْنُهُ إِلَى قَفَاهُ، فَإِنَّهُ الرَّجُلُ يَغْدُو مِنْ بَيْتِهِ، فَيَكْذِبُ الكَذْبَةَ تَبْلُغُ الآفَاقَ، وَأَمَّا الرِّجَالُ وَالنِّسَاءُ العُرَاةُ الَّذِينَ فِي مِثْلِ بِنَاءِ التَّنُّورِ، فَإِنَّهُمُ الزُّنَاةُ وَالزَّوَانِي، وَأَمَّا الرَّجُلُ الَّذِي أَتَيْتَ عَلَيْهِ يَسْبَحُ فِي النَّهَرِ وَيُلْقَمُ الحَجَرَ، فَإِنَّهُ آكِلُ الرِّبَا، وَأَمَّا الرَّجُلُ الكَرِيهُ المَرْآةِ، الَّذِي عِنْدَ النَّارِ يَحُشُّهَا وَيَسْعَى حَوْلَهَا، فَإِنَّهُ مَالِكٌ خَازِنُ جَهَنَّمَ، وَأَمَّا الرَّجُلُ الطَّوِيلُ الَّذِي فِي الرَّوْضَةِ فَإِنَّهُ إِبْرَاهِيمُ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ، وَأَمَّا الوِلْدَانُ الَّذِينَ حَوْلَهُ فَكُلُّ مَوْلُودٍ مَاتَ عَلَى الفِطْرَةِ " قَالَ: فَقَالَ بَعْضُ المُسْلِمِينَ: يَا رَسُولَ اللَّهِ، وَأَوْلاَدُ المُشْرِكِينَ؟ فَقَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: «وَأَوْلاَدُ المُشْرِكِينَ، وَأَمَّا القَوْمُ الَّذِينَ كَانُوا شَطْرٌ مِنْهُمْ حَسَنًا وَشَطْرٌ قَبِيحًا، فَإِنَّهُمْ قَوْمٌ خَلَطُوا عَمَلًا صَالِحًا وَآخَرَ سَيِّئًا، تَجَاوَزَ اللَّهُ عَنْهُمْ (رواه البخارى  
হাদিস বাংলা
হযরত সামুরা ইবনে জুনদুর (রাযিঃ) বলেন যে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অধিকাংশ সময় তাহার সাহাবাদেরকে জিজ্ঞাসা করিতেন যে, তোমাদের মধ্যে কেহ কোন স্বপ্ন দেখিয়াছ কি? কেহ স্বপ্ন বর্ণনা করিত । (তিনি উহার ব্যাখ্যা বলিয়া দিতেন) একদিন সকাল বেলায় রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করিলেন, রাত্রিবেলায় আমি স্বপ্ন দেখিলাম যে, দুইজন ফেরেশতা আমার নিকট আসিলেন এবং আমাকে উঠাইয়া বলিলেন, আমাদের সাথে চলুন । আমি তাহাদের সহিত চলিলাম । আমরা একজন শায়িত ব্যাক্তির নিকট দিয়া গেলাম । তাহার পাশে পাথর হাতে এক ব্যক্তি দাঁড়ানো আছে । সে শায়িত ব্যক্তির মাথার উপর পাথরটি সজোরে নিক্ষেপ করে । ইহাতে তাহার মাথা চূর্ণ বিচূর্ণ হইয়া যায় । এবং পাথরটি গড়াইয়া অন্যদিকে চলিয়া যায় । উক্ত ব্যক্তি যাইয়া পাথরটি উঠাইয়া আনে । তাহার ফিরিয়া আসার পূর্বে শায়িত ব্যক্তির মাথা আগের মত সম্পূর্ণ সুস্থ হইয়া যায় । পুনরায় সে পাথর নিক্ষেপ করে এবং পরিণতি উহাই হয় যাহা পূর্বে হইয়াছিল । আমি অবাক হইয়া সঙ্গী দুইজনকে জিজ্ঞাসা করিলাম, সুবহানাল্লাহ! এই দুই ব্যক্তি কাহারা? (এবং ইহা কি হইতেছে?) তাহারা বলিলেন, চলুন, সামনে চলুন! আমরা সামনে চলিলাম । আমরা চিৎ হইয়া শায়িত এক ব্যক্তির নিকট দিয়া গেলাম । এবং একব্যক্তি তাহার নিকট লোহার চিমটা লইয়া দাঁড়াইয়া আছে । চিমটাধারী ব্যক্তি শায়িত ব্যক্তির চেহারার এক পাশে আসিয়া তাহার চোয়াল নাক এবং চোখ, মাথার পিছনের অংশ পর্যন্ত চিরিয়া ফেলে । অতঃপর অন্য পাশেও এইরূপ করে দ্বিতীয় পাশ হইতে অবসর হওয়ার পূর্বেই প্রথম পাশ সম্পূর্ণরূপে ভাল হইয়া যায় । সে ব্যক্তি এইরূপ করিতে থাকে । আমি তাহাদের দুইজনকে বলিলাম । সুবহানাল্লাহ এই দুই ব্যক্তি কাহারা? তাহারা বলিলেন, চলুন, সামনে চলুন । আমরা সামনে চলিলাম । একটি তন্দুরের নিকট পৌঁছিলাম । উহাতে বড় শোরগোল হইতেছিল । আমরা উঁকি দিয়া দেখিলাম । উহাতে অনেক উলঙ্গ পুরুষ ও মহিলা রহিয়াছে । তাহাদের নীচের দিক হইতে একটি অগ্নিশিখা আসে । সেই অগ্নিশিখা যখন তাহাদেরকে জড়াইয়া ধরে তখন তাহারা চিৎকার করিতে থাকে । আমি তাহাদের দুইজনকে জিজ্ঞাসা করিলাম ইহারা কাহারা? তাহারা বলিলেন, চলুন, সামনে চলুন । আমরা সামনে চলিলাম । একটি নদীর নিকট পৌঁছিলাম । উহা রক্তের মত লালবর্ণ ছিল । আর উহাতে এক ব্যক্তি সাঁতার কাটিতেছিল । নদীর কিনারায় অপর এক ব্যক্তি ছিল যে অনেকগুলি পাথর জমা করিয়া রাখিয়াছিল । সাঁতার কাটা লোকটি যখন সাঁতরাইয়া পাথর জমাকারী লোকটির নিকট আসে তখন সে নিজের মুখ খুলিয়া দেয় । তখনই কিনারায় অপেক্ষমান ব্যক্তি তাহার মুখের ভিতর পাথর ঢালিয়া দেয় । (ইহাতে সে দূরে) চলিয়া যায় । এবং পুনরায় সাঁতরাইয়া ঐ ব্যক্তির নিকট ফিরিয়া আসে । যখনই এই ব্যক্তি সাঁতরাইয়া কিনারায় অপেক্ষমান লোকটির নিকট আসে তখনই সে মুখ হা করে । আর কিনারায় অপেক্ষমান ব্যক্তি তাহার মুখের ভিতর পাথর ঢালিয়া দেয় । আমি তাহাদের দুইজনকে জিজ্ঞাসা করিলাম, এই দুই ব্যক্তি কাহারা? তাহারা বলিলেন, চলুন, সামনে চলুন । আমরা সামনে চলিলাম । তোমরা যত কুৎসিত চেহারার মানুষ দেখিয়াছ তাহাদের অপেক্ষা বেশী কুৎসিত চেহারার মানুষের নিকট দিয়া আমরা গেলাম । তাহার নিকট আগুন জ্বলিতেছিল । সে উহাকে আরো প্রজ্জ্বলিত করিতেছিল এবং উহার চতুর্দিকে দৌড়াইতেছিল । আমি তাহাদেরকে জিজ্ঞাসা করিলাম, এই ব্যক্তি কে? তাহারা বলিলেন, চলুন সামনে চলুন । অতঃপর আমরা এমন এক বাগানে পৌঁছিলাম যাহা ঘন সবুজ ছিল । উহাতে বসন্তকালীন সবরকমের ফুল ছিল । বাগানের মাঝখানে অতি দীর্ঘকায় এক ব্যক্তিকে দেখা গেল । অতি দীর্ঘ হওয়ার কারণে তাহার মাথা দেখা আমার জন্য কষ্টকর ছিল । তাহার চারিপার্শ্বে অনেক শিশু ছিল । এত বেশী সংখ্যক শিশু আমি কখনও দেখি নাই । আমি জিজ্ঞাসা করিলাম, ইনি কে? আর এই শিশুরা কে? তাহারা আমাকে বলিলেন, সামনে চলুন, সামনে চলুন । আমরা চলিলাম এবং একটি বড় বাগানে পৌঁছিলাম । আমি এত বড় ও সুন্দর বাগান কখনও দেখি নাই । তাহারা আমাকে বলিলেন, ইহার উপরে চড়ুন । আমরা উহার উপরে চড়িলাম এবং এমন এক শহরের নিকট পৌঁছিলাম, যাহা এমনভাবে তৈরী ছিল যে, উহার একটি ইট সোনার ছিল, একটি ইট রূপার ছিল । আমরা শহরের দরজায় পৌঁছিলাম । দরজা খুলিতে বলিলে উহা আমাদের জন্য খুলিয়া দেওয়া হইল । আমরা উহার মধ্যে এমন লোকদের সহিত সাক্ষাৎ করিলাম, যাহাদের শরীরের অর্ধেক অংশ এত সুন্দর ছিল যে, তোমরা এমন সুন্দর দেখ নাই । আর অর্ধেক অংশ এত কুৎসিত ছিল যে, তোমরা এমন কুৎসিত চেহারা দেখ নাই । ঐ দুই ফেরেশতা তাহাদিগকে বলিলেন, যাও এই নদীতে ঝাঁপ দাও । আমি দেখিলাম, সামনে একটি প্রশস্ত নদী প্রবাহিত হইতেছে । উহার পানি দুধের মত সাদা । তাহারা উহাতে ঝাঁপাইয়া পড়িল । অতঃপর যখন তাহারা আমাদের নিকট ফিরিয়া আসিল তখন তাহাদের কুৎসিত অবস্থা দূর হইয়া গিয়াছিল, এবং তাহারা অত্যন্ত সুন্দর হইয়া গিয়াছিল । উভয় ফেরেশতা আমাকে বলিলেন, ইহা জান্নাতে আদন এবং ইহা আপনার ঘর । উপরের দিকে আমার দৃষ্টি পড়িলে দেখিলাম, আমি সাদা মেঘের মত একটি মহল দেখিলাম । তাহারা বলিলেন, ইহাই আপনার ঘর । আমি তাহাদেরকে বলিলাম, আল্লাহ তোমাদেরকে বরকত দান করুন । আমাকে ছাড়িয়া দাও আমি উহার ভিতরে প্রবেশ করিব । তাহারা বলিলেন, এখন নয়, তবে পরে যাইবেন । আমি তাহাদেরকে জিজ্ঞাসা করিলাম, আজ রাত্রে আশ্চর্য বিষয়সমূহ দেখিয়াছি । ইহার রহস্য কি? তাহারা আমাকে বলিলেন, এখন আমরা আপনাকে বলিতেছি । প্রথম ব্যক্তি যাহার নিকট দিয়া আপনি অতিক্রম করিয়াছেন, এবং তাহার মাথা পাথর দ্বারা চূর্ণবিচূর্ণ করা হইতেছিল সে হইল যে কুরআন শিক্ষা করে অতঃপর উহাকে ছাড়িয়া দেয় (তেলাওয়াতও করে না, আমলও করে না) আর ফরয নামায ছাড়িয়া ঘুমাইয়া পড়ে । (দ্বিতীয়) ঐ ব্যক্তি যাহার নিকট দিয়া আপনি অতিক্রম করিয়াছেন, এবং তাহার চোয়াল, নাক, চোখ, মাথার পিছন পর্যন্ত কাটা হইতেছিল । সে ঐ ব্যক্তি যে সকাল বেলায় ঘর হইতে বাহির হইয়া মিথ্যা কথা বলে এবং সেই মিথ্যা দুনিয়াতে প্রচারিত হইয়া যায় । (তৃতীয়) ঐ সকল মেয়ে পুরুষ যাহাদেরকে আপনি তন্দুরে জ্বলিতে দেখিয়াছিলেন । তাহারা হইল যিনাকার (ব্যভিচারী) পুরুষ ও মহিলা । (চতুর্থ) ঐ ব্যক্তি যাহার নিকট দিয়া আপনি অতিক্রম করিয়াছেন, যে নদীতে সাঁতার কাটিতেছিল এবং তাহার মুখে পাথর নিক্ষেপ করা হইতেছিল, সে সুদখোর । (পঞ্চম) ঐ কুৎসিত ব্যক্তি যাহার নিকট দিয়া আপনি অতিক্রম করিয়াছিলেন, তিনি জাহান্নামের দারোগা । যাহার নাম মালেক । (ষষ্ট) ঐ ব্যক্তি যিনি বাগানের মধ্যে ছিলেন । তিনি হযরত ইবরাহীম (আঃ) । আর যে সকল শিশুরা তাহার চারিপার্শ্বে ছিল, তাহারা শৈশবেই (ইসলামের) স্বভাবের উপর মৃত্যুবরণ করিয়াছে । কোন সাহাবী জিজ্ঞাসা করিলেন, ইয়া রাসূলুল্লাহ! মুশরিকদের শিশুদের কি হইবে? তিনি এরশাদ করিলেন, মুশরিকদের শিশুরাও (তাহারাই) ছিল । আর যাহাদের অর্ধেক শরীর সুন্দর ও অর্ধেক শরীর কুৎসিত ছিল তাহারা ঐ সমস্ত লোক যাহারা নেক আমলের সহিত বদআমলও করিয়াছে । আল্লাহ তায়ালা তাহাদের গুনাহ ক্ষমা করিয়া দিয়াছেন । (বোখারী)   
HADITH ENGLISH
Samurah ibn Jundub Radiyallahu 'anhu nanates that Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam very often used to ask his companions: Did anyone of you have a dream? So one of them would narrate a dream, and Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam would interpret it. One morning Nabi Sallallahu 'alaihi wasallam said: Last night two persons came to me (in a dream) and woke me up and said: Proceed with us. I proceeded with them and when we came across a man lying down, and then another man was standing over his head, holding a big rock, and he was throwing the rock at the man's head (who was lying down), crushing his head. The rock rolled away at the other end, the thrower followed it and brought it back. By the time he reached the man, his head had been restored to its normal state. The thrower then did the same as he had done before. I said to my companions: 'Subhanallah! Who are these two persons? They said: Proceed! Proceed! So, we proceeded and came to a man lying flat on his back; and another man was standing over his head with iron pincers, and he would put the pincers in one side of the man's mouth, tearing that side of his face, his nose and eyes to the back of the neck, and similarly the same is done at the other side. He hardly completed one side when the other side is restored to its normal state, then he returns to the first side to repeat it. I asked my two companions: Subhanallahl Who are these two persons? They said: Proceed! Proceed! So, we proceeded and came across some thing like a baking oven; Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam said: In that oven there was a lot of noise and screaming. We looked into it and found naked men and women, and a flame of fire reaching to them from underneath, and when it reached them they screamed loudly. I asked them: Who are these? They said: Proceed! Proceed! And so, we proceeded. Then we came across a river, like red blood. Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam added: In the river there was a man swimming, and on the bank there was a man who had collected many stones. The swimming man went close to the man with the stones. The former opened his mouth and the latter (on the bank) threw a stone into his mouth, whereupon he went swimming again. He returned, and every time this was repeated. I asked my two companions: Who are these? They said to me: Proceed! Proceed! And we proceeded till we came to a man with a repulsive appearance, the most repulsive appearance you would have ever seen! Beside him, there was a fire and he was kindling it and running around it. I asked my companions: Who is this (man)? They replied: Proceed! Proceed! So, we proceeded till we reached a garden of deep green dense vegetation, having all sorts of spring colours. In the midst of the garden there was a very tall man and I could hardly see his head because of his great height, and around him there were children, in such large numbers that I had never seen anything like it. I said to my companions: Who is this? They replied: Proceed! Proceed! So, we proceeded till we came to a majestic huge garden, larger and better than any I had ever seen! My two companions said to me: Go up and ascend. Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam added: So we ascended till we reached a city built of gold and silver bricks, and we went to its gate, and it was opened and we entered the city and found in it, men with one half of their bodies as handsome as the most handsome person you had ever seen. The other half of their bodies as ugly as the most ugly person you had ever seen. My two companions ordered those men to jump into the river. There was a river flowing across (the city), and its water was as white as milk. Those men went and dipped themselves in it and when they returned to us, their ugliness had disappeared and they became handsome. Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam further added: My two companions then pointing, said to me, that is your place, the Jannat-ul- 'Adan. I raised my sight, and there I saw a palace like a white cloud! My two companions told me: That (palace) is your palace. I said to them: (May Allah bless you both.) Let me enter it. They replied: Not now, but you shall enter it (one day). I said to them: I have seen many wonders tonight. What does all this mean? They replied: We will inform you. As for the first man you came upon, whose head was being crushed with the rock, he is the symbol of the one who memorizes the Qur'an and then neither recites it nor acts on its orders, and sleeps neglecting the obligatory Salat. And for the man you came upon whose sides of mouth, nostrils and eyes were torn off from front to back, he is the symbol of the man who goes out of his house in the morning and tells so many lies that it spreads all over the world. And those naked men and women, whom you saw in an oven-like structure, are the fornicating men and women. The man whom you saw swimming in the river and who was given a stone to swallow, is the eater of Riba (usury), and the ugly looking man whom you saw near the fire kindling it and going round it, is Malik, the Warden of Hell, and the tall man whom you saw in the garden, is Ibrahim 'Alaihis Salam, and the children around him are those children who die with the natural faith with which every child is born. The narrator added: Some Muslims asked Nabi Sallallahu 'alaihi wasallam: O Rasulullah! What about the polytheist's children? Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam replied: And also polytheist's children. Rasulullah Sallallahu 'alaihi wasallam added: The men you saw half handsome and half ugly, were those persons who along with good deeds had also done evil deeds but Allah forgave them. (Bukhari). .  
 
 
 
previous   Next