Muntakhab Hadith

 
 
SIFAT
Dawat and Tabligh  
SECTION
Da'wat and its virtues  
Type
Hadith  
SERIAL NUMBER
21  
الحديث فى العربى
عَنْ أُبِىْ أَمَيَّةَ الشَّعْبَانِىِّ رَحِمَهُ اللهُ قَالَ : سَأَلْتُ أَبَا ثَعْلَبَةَ الْخُشَنِىَّ رَضِىَ اللهُ عَنْهُ فَقُلْتُ : يَا أَبَا ثَعْلَبَةَ ! كَيْفَ تَقُوْلُ فِىْ هٰذِهِ الآيَةِ ؟ ( عَلَيْكُمْ أَنْفُسَكُمْ ) قَالَ : أَمَا وَاللهِ لَقَدْ سَأَلْتَ عَنْهَا خَبِيْرًا ، سَأَلْتُ عَنْهَا رَسُوْلَ اللهِ فَقَالَ ﷺ : بَلِ ائْتَمِرُوا بِالْمَعْرُوْفِ وَتَنَاهَوْا عَنِ الْمُنْكَرِ ، حَتّىٰ إِذَا رَأَيْتَ شُحًّا مُطَاعًا ، وَهَوًى مُتَّبَعًا ، وَدُنْيَا مُؤْثَرَةً ، وَإِعْجَابَ كُلِّ ذِىْرَأْىٍ بِرَأْيِهِ ، فَعَلَيْكَ يَعْنِىْ بِنَفْسِكَ ، وَدَعْ عَنْكَ الْعَوَامَّ ، فَإِنَّ مِنْ وَرَآءِ كُمْ أَيَّامَ الصَّبْرُ فِيْهِ مِثْلُ قَبْضٍ عَلَى الْجَمَرِ ، لِلْعَامِلِ فِيْهِمْ مِثْلُ أَجْرِ خَمْسِيْنَ رَجُلاً يَعْمَلُوْنَ مِثْلَ عَمَلِهِ . فَقَالَ ( أَبُوْثعَلْبَةَ ) : يَا رَسُوْلَ اللهِ ! خَمْسِيْنَ مِنْهُمْ ، قَالَ : أَجْرُ خَمْسِيْنَ مِنْكُمْ . ( رواه ابوداؤد ، باب الامر والهى ، رقم : )  
হাদিস বাংলা
হযরত আবু উমাইয়্যাহ শা’বানী (রহঃ) বলেন, আমি হযরত আবু সা’লাবাহ খুশানী (রাযিঃ) কে জিজ্ঞাসা করিলাম, আপনি আল্লাহ তায়ালার এই এরশাদ ………..‘অর্থাৎ, তোমরা নিজেদের ফিকির কর’ এর ব্যাপারে কি বলেন? তিনি এরশাদ করিলেন, আল্লাহর কসম, তুমি এমন ব্যক্তির নিকট এই বিষয় জিজ্ঞাসা করিয়াছ, যে এই ব্যাপারে খু্ব ভালভাবে অবগত আছে । আমি স্বয়ং রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট এই আয়াতের অর্থ জিজ্ঞাসা করিয়াছিলাম । তিনি েএরশাদ করিয়াছিলেন যে, (ইহার উদ্দেশ্য এই নয় যে, শুধু নিজের ফিকির কর) বরং একে অন্যকে সৎকাজের আদেশ করিতে থাক এবং অসৎ কাজ হইতে বাধা দিতে থাক । অতঃপর যখন দেখিবে যে, লোকেরা ব্যাপকভাবে কৃপণতা করিতেছে, খাহেশাতকে পূরণ করা হইতেছে, দুনিয়াকে দ্বীনের উপর অগ্রাধিকার দেওয়া হইতেছে এবং প্রত্যেক ব্যক্তি নিজের রায়কে পছন্দ করিতেছে (অন্যের রায়কে মানিতেছে না) তখন সাধারণ লোকদেরকে ছাড়িয়া নিজের সংশোধনের ফিকিরে লাগিয়া যাইও । কেননা শেষ যামানায় এমন দিন আসিবে যখন দ্বীনের হুকুমসমূহের উপর অটল থাকিয়া আমল করা জলন্ত কয়লা হাতে লওয়ার ন্যায় কঠিন হইবে । সেই সময় আমলকারী তাহার একটি আমলের উপর এত পরিমাণ সওয়াব পাইবে যত পরিমাণ পঞ্চাশজন উক্ত আমল করিলে পায় । হযরত আবু সা’লাবা (রাযিঃ) বলেন, আমি আরজ করিলাম. ইয়া রাসূলাল্লাহ, তাহাদের মধ্য হইতে পঞ্চাশ জনের সওয়াব পাইবে, (না আমাদের মধ্য হইতে পঞ্চাশ জনের)? (কেননা সাহাবা (রাযিঃ) দের আমলের সওয়াব অনেক বেশী) এরশাদ করিলেন, তোমাদের মধ্য হইতে পঞ্চাশজনের সওয়াব সেই একজন পাইবে । (আবু দাউদ) ফায়দাঃ ইহার অর্থ এই নয় যে, শেষ যমানায় আমলকারী ব্যক্তি তাহার এই বিশেষ ফযীলতের কারণে সাহাবা (রাযিঃ) দের অপেক্ষা মর্যাদায় বাড়িয়া যাইবে । কেননা সাহাবা (রাযিঃ) সর্বাবস্থায় অবশিষ্ট সমস্ত উম্মত হইতে উত্তম । এই হাদীস শরীফ দ্বারা জানা গেল যে, আমর বিল মারুফ নহী আনিল মুনকার করিতে থাকা জরুরী । অবশ্য যদি এমন সময় আসিয়া পড়ে যে, হক কথা গ্রহণ করার যোগ্যতা একেবারেই খতম হইয়া যায় তবে সেই সময় পৃথক হইয়া থাকার হুকুম রহিয়াছে । আল্লাহ তায়ালার মেহেরবাণীতে এখনও সেই সময় উপস্থিত হয় নাই, কেননা এখনও এই উম্মতের মধ্যে হক কথা কবুল করার যোগ্যতা বিদ্যমান রহিয়াছে ।   
HADITH ENGLISH
Abu Umayyah Sha'bani Rahimahullahu says that he asked Abu Tha'labah Al Khushani Radiyallahu 'anhu: O Abu Tha'labah! What do you say about this verse (guard yourselves)? He replied: I swear by Allah! You have indeed asked a man who knows about it very well. I asked Rasullullah Sallallahu 'alaihi wasallam about this verse. So he said: But enjoin one another to do good and forbid from evil, until you see miserliness being obeyed; passions being followed; worldly matters being preferred; every person assuming his own opinion to be the only right one; then care for yourself, and leave what people in general are doing. For, surely, thereafter shall come days which will require endurance when holding to Deen will be like grasping a burning coal. The one amongst them, who acts rightly (during that period), will get the reward equal to that of fifty persons. Abu Tha'labah asked: O Rasulallah! The reward of fifty of them! He replied: The reward of fifty of you. (Abu Dawud)  
 
 
 
previous   Next