Muntakhab Hadith

 
 
SIFAT
Ikram-ul-Muslim  
SECTION
Warning against harming muslims  
Type
Hadith  
SERIAL NUMBER
286  
الحديث فى العربى
عَنْ أَبِىْ هُرَيْرَةَ رَضِىَ اللهُ عَنْهُ أَنَّ رَجُلاً شَتَمَ أَبَا بَكْرٍ وَالنَّبِىُّ ﷺ جَالِسٌ ، فَجَعَلَ النَّبِىُّ ﷺ يَعْجَبُ وَيَتَبَسَّمُ ، فَلَمَّا أَكْثَرَ رَدَّ عَلَيْهِ بَعْضَ قَوْلِهِ ، فَغَضِبَ النَّبِىُّ ﷺ وَقَامَ ، فَلَحِقَهُ أَبُوْبَكْرٍ فَقَالَ : يَا رَسُوْلَ اللهِ ! كَانَ يَشْتِمُنِىْ وَأنْتَ جَالِسٌ ، فَلَمَّا رَدَدْتُ عَلَيْهِ بَعْضَ قَوْلِهِ غَضِبْتَ وَقُمْتَ ، قَالَ : إِنَّهُ كَانَ مَعَكَ مَلَكٌ يَرُدُّ عَنْكَ ، فَلَمَّا رَدَدْتَ عَلَيْهِ بَعْضَ قَوْلِهِ وَقَعَ الشَّيْطَانُ فَلَمْ أَكُنْ لأَقْعُدَ مَعَ الشَّيْطَانِ ، ثُمَّ قَالَ : يَا أَبَا بَكْرِ ثَلاَثٌ كُلُّهُنَّ حَقٌ ، مَا مِنْ عَبْدٍ ظُلِمَ بِمَظْلَمَةٍ فَيُغْضِىْ عَنْهَا لِلهِ عَزَّوَجَلَّ إِلاَّ أَعَزَّاللهُ بِهَا نَصْرَهُ ، وَمَا فَتَحَ رَجُلٌ بَابَ عَطِيَّةٍ يُرِيْدُ بِهَا صِلَةً إِلاَّ زَادَهُ اللهُ بِهَا كَثْرَةً ، وَمَافَتَحَ رَجُلٌ بَابَ مَسْأَلَةٍ يُرِيْدُ بِهَا كَثْرَةً إِلاَّ زَادَهُ اللهُ عَزَّوَجَلَّ بِهَا قِلَّةً . ( رواه احمد : )  
হাদিস বাংলা
হযরত আবু হোরায়রা (রাযিঃ) হইতে বর্ণিত আছে, নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বসা ছিলেন । তাহার উপস্থিতিতে এক ব্যক্তি হযরত আবু বকর সিদ্দিক (রাযিঃ) কে গালি দিল । তিনি (ঐ ব্যক্তির বার বার গালি দেওয়া এবং হযরত আবু বকর (রাযিঃ) এর ছবর ও খামুশ থাকার উপর) খুশী হইতে থাকেন এবং মুচকি হাসিতে থাকেন । অতঃপর যখনই সেই ব্যক্তি অনেক বেশী গালিগালাজ করিল তখন হযরত আবু বকর (রাযিঃ) তাহার কিছু কথার জওয়াব দিয়া দিলেন । ইহার উপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অসুন্তুষ্ট হইয়া সেখান হইতে চলিয়া গেলেন । হযরত আবু বকর (রাযিঃ) ও তাঁহার পিছনে পিছনে তাহার নিকট পৌঁছিলেন এবং আরজ করিলেন, ইয়া রাসূলাল্লাহ! (যতক্ষণ) ঐ ব্যক্তি আমাকে গালি দিতেছিল আপনি সেখানে অবস্থান করিতেছিলেন, তারপর যখন আমি তাহার কিছু কথার জওয়াব দিলাম তখন আপনি নারাজ হইয়া উঠিয়া গেলেন । রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করিলেন, (যতক্ষণ তুমি চুপ ছিলে এবং ছবর করিতেছিলে) তোমার সহিত একজন ফেরেশতা ছিল, যে তোমার পক্ষ হইতে জওয়াব দিতেছিল । তারপর যখন তুমি তাহার কিছু কথার জওয়াব দিলে (তখন সেই ফেরেশতা চলিয়া গেল আর) শয়তান মাঝখানে আসিয়া গেল । আর আমি শয়তানের সহিত বসি না । (এইজন্য আমি উঠিয়া রওয়ানা হইয়া গিয়াছি ।) ইহার পর তিনি এরশাদ করিলেন, হে আবু বকর! তিনটি বিষয় আছে যাহা সম্পূর্ণ হক ও সত্য । যে বান্দার উপর কোন জুলুম অথবা সীমালংঘন করা হয় আর সে শুধু আল্লাহ তায়ালার জন্য উহা মাফ করিয়া দেয় (ও প্রতিশোধ না লয়) তখন উহার বিনিময়ে আল্লাহ তায়ালা তাহাকে সাহায্য করিয়া শক্তিশালী করিয়া দেন । যে ব্যক্তি আত্নীয়তা বজায় রাখার জন্য দানের রাস্তা খোলে আল্লাহ তায়ালা উহার বিনিময়ে অনেক বেশী দান করেন । যে ব্যক্তি সম্পদ বৃদ্ধি করার জন্য সওয়ালের দরজা খোলে আল্লাহ তায়ালা তাহার সম্পদ আরও কমাইয়া দেন । (মুসনাদে আহমাদ)   
HADITH ENGLISH
Abu Hurairah Radiyallahu 'anhu narrates that a man abused Abu Bakr while Nabi Sallallahu 'alaihi wasallam was sitting. Appreciating (the forbearance and patience of Abu Bakr Radiyallahu 'anhu), he kept smiling, but when the man went on at length and Abu Bakr Radiyallahu 'anhu replied to some of what he said; Rasullullah Sallallahu 'alaihi wasallam became angry and left. Abu Bakr Radiyallahu 'anhu went after him and said: O Rasulallah! He was abusing me in your presence but when I replied to some of what he said, you became angry, and left. He replied: There was an angel with you, replying to him on your behalf but when you replied to him, Shaitan got in, and I am not supposed to sit with Shaitan. He then added: Abu Bakr! There are three things, all of which are true:@ +@1. Anyone who is wronged and he ignores it for the sake of Allah Azza wa Jail, Allah will help him out and strengthen him.@ +@2. Anyone who begins to give intending thereby to unite ties of relationship, Allah provides him with much more because of it.@ +@3. Anyone who opens a door of begging, desiring to increase his wealth, Allah Azza wa Jalil increases his scantiness because of it (Musnad Ahmad)  
 
 
 
previous   Next